আপনি কি জানেন হাতের ক’ব্জির এই রেখাগুলোতে আপনার সম্পর্কে অনেক কিছু আছে?

আপনি কি জানেন হাতের কব্জির এই রেখাগুলোতে আপনার সম্পর্কে অনেক কিছু আছে? জানলে আফসোস করবেন আগে কেন জানেন নি- হাতের রেখা দেখে মানুষের ভবিষ্যৎ কথনের প্রক্রিয়া ভারতীয় জ্যো’তিষে বহুদিন থেকেই প্রচলিত।

তবে অনেকক্ষেত্রে হস্তরেখা বিচারের সময়ে হাতের কবজির রেখাকেও গুরুত্ব দেওয়া হয়। জ্যোতিষ শাস্ত্র বলে, সেই রেখা থেকেই নাকি জানা যেতে পারে কোনও মানুষের স্বাস্থ্য, জীবন, এবং প্রেম সম্পর্কে নানা তথ্য।

এমনকী, একটু চেষ্টা করলে এই রেখাগুলি থেকে আপনিও জেনে নিতে পারেন আপনার ভবিষ্যৎ। কীভাবে? আসুন, জেনে নিই

১. প্রথমেই জেনে নিন কোন রেখাগুলির উপর নজর দিতে হবে। হাতের ভিতরের দিকে (অর্থাৎ তালুর দিকে) তালুর ঠিক নীচে যে রেখাগুলি থাকে সে গুলিকেই ইংরেজিতে বলা হয় ব্রেসলেট লাইনস। এই ব্রে’স’লেট লাইন গুলোর উপরেই আপনাকে মনোযোগ দিতে হবে।

২. এবার ভাল করে হাত ধুয়ে ক’ব’জিতে ময়েশ্চারাইজার লাগিয়ে দিন একটু। তাতে ক’বজির রেখাগুলো স্প’ষ্ট হবে।

৩. এবার কবজির রেখা গুলোর সংখ্যা গুনুন। আপনার আয়ু নিহিত রয়েছে এই রেখার সংখ্যার উপরেই। রেখার সংখ্যা যত বেশি হবে তত বেশি দিন আপনার বাঁচার সম্ভাবনা।

১টি‌ দা’গ থাকলে আ’য়ু ২৫-২৮ বছর, ২ দাগ থাকলে ৪৫-৪৭, আর তিনটি দাগ থাকলে ৮৫ বছরের বেশি আয়ু‌ হওয়ার সম্ভাবনা।

৪. এবার তালুর দিক থেকে প্রথম লাইনটির দিকে তাকান। যদি লাইনটি স্প’ষ্ট হয় তাহলে আপনার স্বাস্থ্য ভাল।

যদি লাইনটি হয় অস্পষ্ট আর লাইনটির উপরে অনেক কাটাকুটি দাগ থাকে তাহলে নানা রো”গে আপনার আ”ক্রান্ত হওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে।

৫. আপনি যদি মহিলা হন, আর আপনার এই লাইনটি উপরে তালুর দিকে বেঁকে যায় তাহলে আপনার স্ত্রী’রো’গ ঘ’টিত জটি’লতা দেখা দিতে পারে।

৬. পুরুষদের ক্ষেত্রে প্রথম লাইনটির এই ধরনের ঊর্ধ্বগামী বাঁ’ক বোঝায়, প্রস্টেট বা কি’ড’নির রো’গ কিংবা যৌ”ন স’ম’স্যা দেখা দিতে পারে।

৭. তালুর দিক থেকে দ্বিতীয় লাইনটি জীবনে সম্পদের প্রতীক। এই লাইনটি যত স্পষ্ট আর কা’টাকু’টি দা’গবি’হীন হবে, আপনার জীবনে স’ম্পদশা’লী হওয়ার সম্ভাবনা তত বেশি।

৮. তালুর দিক থেকে তৃতীয় লাইনটি আপনার পেশা, প্রতিপত্তি ও খ্যাতির প্রতীক। লাইনটি যদি হয় স্পষ্ট এবং টানা (অর্থাৎ লাইনের মাঝে কোনও ফাঁক ছাড়া) তাহলে জীবনে প্র’ভা’বশা’লী ব্যক্তিত্ব হয়ে উঠবেন আপনি।

৯. কবজিতে চারটি দাগ খুব অল্প মানুষেরই থাকে। যদি আপনি সেই বিরল মানুষদের মধ্যে একজন হন তাহলে দেখুন‌, সেই রেখাটি তৃতীয় রেখাটির সঙ্গে সমান্তরাল ভাবে রয়েছে কি না।

যদি তাই হয়, তাহলে জানবেন তৃতীয় রেখাটি আপনার জীবনে যে প্রভাব ফেলবে, চতুর্থ রেখা সেই প্রভাবকেই আরও শ’ক্তিশা”লী করে তুলবে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *