গর্ভাবস্থায় সন্তান ছেলে নাকি মেয়ে হবে বুঝবেন এই ১২ লক্ষণে

গর্ভাবস্থায় প্রতিটি মা-বাবারই ইচ্ছা থাকে গর্ভের সন্তান ছেলে নাকি মেয়ে হবে তা জা’নার। আর এর জন্য অন্ত:স্বত্ত্বা হওয়ার পর থেকেই অনাগত সন্তানের লি’ঙ্গ নিয়ে ব্যাকুলতার সীমা থাকে না সেই দম্পত্তির।আধুনিক চিকিৎ’সায় আলট্রাস্নোগ্রাফের সাহায্যে লি’ঙ্গ জা’না গেলেও তা শা’স্তিযোগ্য অপরাধ।

তাই এই অপরাধ থেকে বিরত থাকুন। তবে গর্ভবতী নারীর কিছু লক্ষণ দেখে খুব সহজেই আপনি জানতে পারবেন গর্ভের সন্তান ছেলে নাকি মেয়ে হবে। দেরি না করে চলুন তবে জে’নে নেয়া যাক সেই লক্ষণগুলো স’স্পর্কে-

ওজন বৃ’দ্ধি
মায়ের পে’টে ছেলে সন্তান থাকলে দৈহিক ওজন স্বা’ভাবিকের থেকে অনেক বেড়ে যায় এবং পে’টটা একটু অতিরি’ক্ত মাত্রায় ফোলা মনে হয়। প্রসঙ্গত,
মেয়ে সন্তান পে’টে থাকলে সাধারণত মায়ের সারা শ’রীরেই মেদের হার বৃ’দ্ধি পায়, এমনকি মুখেও। এই ভাবেই অনেকাংশে বুঝতে পারা সম্ভব হয় যে ছেলে হতে চলেছে না মেয়ে।

পায়ের পাতা ঠাণ্ডা হয়ে যাওয়া এমন ধ’রনের লক্ষণের বহিঃপ্র’কাশ ঘটলে মনে কোনো সন্দে’হ রাখবেন যে ছেলে সন্তানের জ’ন্ম হতে চলেছে।

এক্ষেত্রে এই কাজটি ক’রতে হবে স্বামীকে। যদি দেখেন আপনার স্ত্রী বাঁদিকে ফি’রে ঘুমোচ্ছে, তাহলে আশা রাখতে পারেন যে আপনাদের ছেলেই হবে।
পে’টের অবয়ব আপনার পে’ট কি নিচের দিকে বেশি ঝুঁকে গেছে? এমনটা হলে ছেলে সন্তান হওয়ার সম্ভাবনা বেশি থাকে। হার্ট রেট ওঠা-নামা গর্ভাবস্তায় চিকি’ৎসকেরা প্রায়শই বাচ্চার হার্ট রেট মেপে থাকেন।

এই সময় যদি দেখা যায় বাচ্চার হার্ট রেট ১৪০ বিট/ প্রতি মিনিট রয়েছে, তাহলে মনে কোনো সন্দে’হ রাখবেন না যে ছেলে বাচ্চাই জ’ন্ম নিতে চলেছে।

ইউরিন কালার
একাধিক গবেষণায় একথা প্রমাণিত হয়েছে যে গর্ভাবস্তায় মায়ের প্রস্রাবের রং যদি গাড় হলদেটে হয়, তাহলে বুঝতে হবে ছেলে সন্তান হতে চলেছে। আর যদি দেখেন উজ্জ্বল হলুদ রঙের প্রস্রাব হচ্ছে,

তাহলে এই বিষয়ে কোনো সন্দে’হ রাখবেন না যে আপনি মেয়ে সন্তানের মা হতে চলেছেন।হাতের তালু বারে বারে শুকিয়ে যাবে প্রেগন্যান্সির সময় বারে বারে হাতের তালু শুকিয়ে যাওয়ার অর্থ হল ছেলে সন্তান জ’ন্ম নিতে চলেছে।

ব্রণের প্রকোপ
প্রেগন্যান্সির সময় একাধিক হরমোনের ক্ষরণ ঠিক মতো হয় না। যে কারণে এমনিতেই বিভিন্ন রকমের ত্বকের রোগের প্রকোপ বৃ’দ্ধি পায়। তবে যদি দেখেন ব্রণের স’মস্যা উত্তরোত্তর বৃ’দ্ধি পাচ্ছে তাহলে জানবেন আপনার পে’টে ছেলে সন্তান বড় হয়ে উঠছে।
ক্ষুধা বেশি লা’গা
ভাবি মায়ের ক্ষিদে কি খুব বেড়ে গেছে? অল্প সময় অন্তর অন্তরই মনে হচ্ছে পে’টে যেন ছুঁচো দৌড়াচ্ছে? তাহলে আপনাকে অভিনন্দন। কারণ ছেলে সন্তান হওয়ার আগে এমনই সব লক্ষণের বহিঃপ্র’কাশ ঘ’টে থাকে।

ব্রেস্টের মাপ
গর্ভাবস্তায় ভাবী মায়ের ব্রেস্টের মাপ এমনিতেই বেড়ে যায়। কারণ এই সময় মায়ের শ’রীরে দুধের সঞ্চয় হতে শুরু করে। সাধারণত এই সময় ডান দিকের থেকে বাঁদিকের ব্রেস্ট একটু বেশি মাত্রায় ভারি হয়ে যায়। তবে যদি উল্টো ঘ’টনা ঘটতে দেখেন তাহলে নি’শ্চিত থাকবেন আপনার ছেলে হতে চলেছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *