চুন ছাড়াই ঝটপট ভুঁড়ি পরিষ্কারের সহজ দুই পদ্ধতি

কোরবানির ঈদে কমবেশি সবাই গরু বা খাসি কোরবানি দেওয়ার চেষ্টা করেন। কেউ কেউ আবার গরু ও খাসি দুটোই কোরবানি দেন। কোরবানির পর মাংস গোছানো ও বণ্টন নিয়ে এমনি অনেক ঝামেলা পোহাতে হয়, তবে সবচেয়ে বেশি কষ্ট ভোগ করতে হয় ভুঁড়ি পরিষ্কার করা নিয়ে।
ভুঁড়ি খেতে দারুণ সুস্বাদু, তাই কষ্ট হলেও এটি পরিষ্কার করতে হয়। তবে ভুঁড়ি পরিষ্কার করার মতো যারপরনাই ঝক্কির কাজটি বেশিরভাগ ক্ষেত্রে নারীদেরই করতে হয়! তাই তাদের অন্যান্য কাজ সামাল দেয়া কষ্টকর হয়ে পড়ে।

তবে এই কঠিন কাজটি সহজেই করা সম্ভব! ভুঁড়িতে লেগে থাকা ময়লা দূর করতে অনেকে চুন ব্যবহার করেন। তবে সময়সাপেক্ষ এসব পদ্ধতি বাদ দিয়ে সহজ দুটি উপায়ে ঝটপট পরিষ্কার করে ফেলতে পারেন ভুঁড়ি। চলুন তবে জেনে নেয়া যাক জেনে সেই সহজ দুটি পদ্ধতি সম্পর্কে বিস্তারিত-

পদ্ধতি ১
একটি হাঁড়িতে পানি ফুটিয়ে নিন। ভুঁড়ি ছোট টুকরা করে কেটে নিন। প্রতিটি টুকরা আলাদা আলাদা করে ধুয়ে ঘষে পরিষ্কার করুন। পানি ফুটে উঠলে খানিকটা পানি আলাদা একটি পাত্রে নিয়ে ভুঁড়ির কালো পাশটি পানিতে দিয়ে দিন। ১২ থেকে ১৩ সেকেন্ড রেখে সঙ্গে সঙ্গে তুলে নিন। একটি চামচ দিয়ে ধরে আরেকটি চামচ দিয়ে আঁচড়ে কালো ময়লা তুলে নিন। একটু ঠাণ্ডা হলে চামচ সরিয়ে হাত দিয়ে ধরে আঁচড়ে তুলুন কালো ময়লা। ভুঁড়ির যে অংশ খাঁজকাটা থাকে, সেই অংশ আরো কয়েক সেকেন্ড বেশি ভেজাবেন গরম পানিতে। চামচের বদলে স্টিলের গ্লাস দিয়ে ওঠাতে পারেন ময়লা। তবে ১৩ থেকে ১৭ সেকেন্ডের বেশি গরম পানিতে রাখবেন না ভুঁড়ি। এতে ময়লা আরো আটকে যেতে পারে।

ভালো করে পরিষ্কার করার পর কলের পানি দিয়ে ধুয়ে নিন ভুঁড়ি। একটা একটা টুকরা নিয়ে ধোবেন। ভুঁড়ি সিদ্ধ করার জন্য হাঁড়িতে পানি নিন পর্যাপ্ত পরিমাণে। এমনভাবে পানি নেবেন যেন ভুঁড়ি ডুবে থাকে পুরোপুরি। ১ থেকে দেড় চা চামচ হলুদ দিয়ে দিন পানিতে। তারপর চুলার আঁচ বাড়িয়ে সিদ্ধ করুন ভুঁড়ি।
পদ্ধতি ২

প্রথমেই কাঁচি দিয়ে ভুঁড়ি কয়েকটি বড় টুকরা করে নিন। পানি গরম করে সিদ্ধ করে নিন ভুঁড়ি। চুলা থেকে নামিয়ে গরম থাকা অবস্থায়ই হাতে গ্লাভস পরে চামচ দিয়ে ঘষে উঠিয়ে ফেলুন ময়লা।

প্রাথমিকভাবে পরিষ্কার করা হয়ে গেলে একটি বড় প্যানে পরিমাণ মতো পানি গরম করুন। ১ চা চামচ হলুদের গুঁড়া দিয়ে দিন পানিতে। কেটে রাখা ভুঁড়ির টুকরা দিয়ে দিন। বলক ওঠা পর্যন্ত অপেক্ষা করুন। ১৫ থেকে ২০ মিনিট পর তেল ও ময়লা ভেসে উঠবে। ঝাঁঝরিতে উঠিয়ে পানি ঝরিয়ে ফেলুন। গরম অবস্থায় চামচ দিয়ে চেঁছে উঠিয়ে ফেলুন বাকি ময়লা। বিশেষ করে চর্বির অংশে জমে থাকা ময়লা পরিষ্কার করতে হবে ভালো করে। চাইলে পেছনের অংশের পাতলা আবরণ উঠিয়ে ফেলতে পারেন। তাহলে আরো দ্রুত পরিষ্কার হবে ভুঁড়ি।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *