য’দি রা’তে খা’ট‌ কা’পা’ইতে চা’ন, তাহলে স’ন্ধ্যা’বে’লা এই খা’বা’রগু’লি চি’বিয়ে খা’ন!

স্বা’মী-স্ত্রীর একান্ত ব্যাক্তিগত সময় হল রাত। সারাদিন ব্যাস্ততার মাঝে হয়ে ওঠেনা সামান্য কথা টুকু। দিনের শেষে দুই কপোত কপোতীর মি’লন হয়। দুজন দুজনকে উজার করে ভালবাসতে চায় রতিক্রিয়াও ভালবাসারই একটি অ’’ঙ্গ। দম্পতিরা নিজেদের ভালোবাসার

মাঝখানে কোন বা’ধা বরদাস্ত করেনা। সে বাইরে থেকে আসা কোন উটকো ঝামেলাই হোক বা নিজেদের মধ্যে থাকা কোন স’মস্যা।রাতে বিছানায় যদি দুজন মি’লনের সময় পরিতৃ’’প্ত না হয় তাহলে স্বাভাবিক ভাবেই ভা’ঙ্গন ধরে সংসারে।

অনেক সময় দেখা যায় পুরু’ষদের কিছু শা’রীরিক দূর্বলতার ফলে বিঘ্ন ঘটে যৌ’-ন সম্প’র্কের। কিন্তু বেশিরভাগ সময়ই বিছানায় পুরু’ষের আধিপত্য চলে। পুরু’ষেরা নিজেদের পুরু’ষ সিংহ বলে প্রমান করতে চায় তার স’’ঙ্গিনীর কাছে। অনেক সময় সেটা হয়ে ওঠেনা কিছু দূর্বলতার কারনে। তবে আজ বিশেষ করে পুরু’ষদের উদ্দেশ্যে বলবো যে এমন দুটি খাবার

আছে যা বিছানায় যাওয়ার আগে সন্ধ্যাব’েলা চিবিয়ে জল খেয়ে নেন তাহলে আপনি দেখিয়ে দিতে পারবেন বিছানায় আপনার দক্ষ’তা।অনেক সময় এমনও হয় যে স’’ঙ্গিনীর চ’রম ই’চ্ছা থাকা সত্ত্বেও সে সন্তুষ্ট হয়না তার স’’ঙ্গীর দূর্বলতার কারনে। সেখানে নিজের স’’ঙ্গিনীর কাছে ছোট হয়ে যেতে হয় সেই পুরু’ষকে।

তাহলে আজ থেকে আর এসব স’মস্যায় পড়তে হবেনা আপনাদের। এই সামান্য জিনিসগু’’লির সাহায্যে হয়ে উঠতে পারে আপনাদের জীবন মধুময়।আমর’া সকলে জানিনা কি কি খাবার খেলে আর এই স’মস্যার সম্মুখীন ‘হতে হবেনা। কিন্তু এটুকু নিশ্চই জানি শ’রীরে পর্জা’প্ত পরিমানে পুষ্টি গেলে এধরনের স’মস্যা আসে’না। সাধারণত শ’রীরে ভিটামিন ও মিনারেলসের ভারসাম্য বজায় থাকলে এন্ড্রোক্রা’ইন সিস্টেম বজায় থাকে।

এন্ড্রোক্রা’ইন সিস্টেম শ’রীরে ইস্ট্রোজেন এবং টেস্টোস্টেরনের ভারসাম্য বজায় রাখে। আর এই দুটি হরমোন আমা’দের যৌ’-ন ই’চ্ছা ও আকাঙ্খা নিয়ন্ত্রনে রাখে। ভালো দক্ষ’তা দেখানোর জন্য সু’খাদ্য খাওয়া খুব জরুরি। তাহলে এবার জানুন খাবার গু’’লি কি কি যা খেলে আপনি বিছানায় হয়ে উঠবেন পুরু’ষ সিংহ।

১। রসুন ঃ যারা বাবা ‘হতে ইচ্ছুক তাদের জন্য রসুন একটি এমন খাদ্য যা স্পার্মের ক্ষ’মতা বৃ’’দ্ধি করে। এতে আছে সেলেনিয়াম নামক এমন একটি অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট যা স্পার্মের সক্রিয়তা বাড়ায়। রসুন যৌ’-না’’ঙ্গের উদ্দীপনা বাড়ায়।
২। কালো জিরা ঃ কালোজিরা বা নাইজে’লা সিডে রয়েছে ১৫টি অ্যামাইনো এ’সিড। এছাড়াও কালোজিরায় ২১% প্রোটিন ও ৩৮% শর্করা আছে। নি’য়মিত কালোজিরা সেবনে স্পা’র্ম সংখ্যা বৃ’’দ্ধি পায় এবং স্পা’র্ম আরো শ’ক্তিশালী হয়।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *