স্বামী ও সন্তান নিয়ে কেমন আছেন পর্দা কাঁপানো অভিনেত্রী নাসরিন!

এ পর্যন্ত পাঁচ শতাধিক চলচ্চিত্রে অভিনয় করেছেন অভিনেত্রী নাসরিন আক্তার নার্গিস। বাংলা চলচ্চিত্রের এক সময়ের জনপ্রিয় অভিনেত্রী ছিলেন তিনি।

পুরো নাম নাসরিন আক্তার নার্গিস হলেও চলচ্চিত্র অঙ্গনে শুধু নাসরিন নামেই অধিক পরিচিত। একটি গণমাধ্যমে কথা হয় নাসরিনের সঙ্গে।

ব্যক্তিগত জীবনসহ নানা প্রসঙ্গ উঠে আসে তাঁর কথায়। কেমন আছেন, জানতে চাইলে নাসরিন বলেন, আলহামদুলিল্লাহ ভালো আছি। দীর্ঘদিন অসুস্থ ছিলাম। করোনার আগে অ;স্ত্রো;প;চার হয়েছে। এখন ভালো আছি। দীর্ঘদিন নাসরিনকে চলচ্চিত্রে তেমন দেখা যাচ্ছে না।

এর কারণ জানতে চাইলে এই অভিনেত্রী বলেন, এর কোন কারণ নেই। কারো হাতেই কাজ নেই তাই। এ সময় তিনি মজা করেই বলেন, সাংবাদিক এবং ইউটিউবার ছাড়া কারো হাতেই কাজ নেই। শিল্পীদের হাতে কাজ নেই। সাংবাদিক আর ইউটিউবারদের হাতে কাজ আছে। শিল্পীদেরকে খুঁচি;য়ে খুঁ;চিয়ে নিউজ করাই তাদের কাজ।

তিনি বলেন, এখন কারও হাতেই কাজই নেই। এটা বলে কোন লাভ নেই। এটা পুরনো বিষয়। নাটকে কাজ করেন কী না, জানতে চাইলে তিনি বলেন, নাটকে কাজ করি যদি আমার মন মতো হয়। আমার বাসা থেকে যদি কাছাকাছি হয়। সম্প্রতি একটি নাটকে শুটিং করেছি যেটা ছিলো মিরপুরে একটি ইন্ডোরের মধ্যে।

আমর স্বাস্থ্যের বিষয়ে বিবেচনা করে মনে করেছি এটা সম্ভব, তাই করেছি। আমার শরীরটাও তেমন ভালো না, দূরে যেই কাজ আসে তা করার ইচ্ছে করে না। স্বামীর বিষয়ে জানতে চাইলে তিনি বলেন, আমার হাতে যদি কাজ না থাকে ওর হাতে কি কাজ থাকবে। ওর হাতে তো কাজ অনেক আগেই শেষ।

কীভাবে দিন কাটছে, জানতে চাইলে তিনি বলেন, করোনার কারণে ঘরবন্দি আছি। স্বামী ও দুই সন্তান নিয়ে ভালো আছি। সন্তানদের নিয়ে ভবিষ্যৎ পরিকল্পনা কি? এ বিষয়ে তিনি বলেন, প্রতিটা মা-বাবার যেই স্বপ্ন আমারও তাই। বাকিটা আল্লাহর হাতে। আমাদের প্রত্যাশা দু’জনই ভালো মানুষ হবে।

সন্তানদের মধ্যে মেয়ে কামরুন্নাহার আফরিনের বয়স ছয় বছর। পড়েন ক্লাস ওয়ানে। আর ছেলে গোলাম মোরশেদ রিদয় বয়স চার বছর।

উল্লেখ্য, রুপালি পর্দায় এই অভিনেত্রীর অভিষেক হয় সোহানুর রহমান সোহান পরিচালিত ‘লাভ’ ছবির মধ্য দিয়ে ১৯৯২ সালে।

তারপর কৌতুক অভিনেতা টেলি সামাদের সঙ্গে জুটি হয়ে আলোচনায় আসেন তিনি। তবে দিলদারের জুটি হিসেবে নাসরিনের জনপ্রিয়তা ছড়িয়ে পড়ে দেশজুড়ে। সিনেমার প্রচারে ক্যানভাসাররা মাইকে মাইকে বলে বেড়াতেন দিলদারের নায়িকা নাসরিন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *