সবসময় ব্যবহার করেন ইয়ারফোন? সা’বধান সময় থাকতে সত’র্ক হোন!

সবসময় ব্যবহার করেন ইয়ারফোন? সা’বধান সময় থাকতে সত’র্ক হোন!
প্রযু’ক্তির উ’ন্নতিতে উন্নয়নের তা’লে তাল মে’লাচ্ছে মানুষ৷ কিন্তু এই উন্নতির মধ্যেই লু’কিয়ে রয়েছে ক্ষ’তিও। তেমনই একটি ছোট্ট উদাহ’রণ হল ‘ই’য়ারফোন’, যা ফোনের বা ল্যা’পটপের স’ঙ্গে ব্যবহার করেন অ’নেকে৷ইয়ারফোনের বেশি ব্যবহারে যে ৫টি ক্ষ’তি হচ্ছে আমাদের-

কানে বায়ু চলাচলে অ’সুবিধা – ফোনে সরাসরি কান না রেখে অনেকেই ইয়ারফোন ব্যবহার করে থাকেন৷ এর দী’র্ঘক্ষণ ব্যবহারে কিন্তু কানে বায়ু চলাচলে সম’স্যা দেখা দিতে পারে এবং এর ফলে সং’ক্রমণ হতে পারে যা আপনার কানের ক্ষ’তি করবে৷

শ্র’বণশ’ক্তি হ্রাস – পরীক্ষা করে দেখা গেছে ইয়ারফোনে ৯০ ডেসিবলের উপর শব্দ শুনলে শ্র’বণশ’ক্তি ক্ষ’তিগ্রস্ত হতে পারে৷ শ্র’বণশ’ক্তি চি’রতরের মতো হা’রিয়েও যেতে পারে এমনই অ’ভিমত অনেক বি’শেষজ্ঞের। ১০০ ডেসিবলের ওপর মাত্র ১৫ মিনিট ইয়ারফোন ব্যবহার করলে শ্র’বণশ’ক্তি ন’ষ্ট হতে পারে।

শ্র’বণশ’ক্তির জ’ড়তা – কিছু স’মীক্ষায় দেখা যায়, যারা নিয়মিত ইয়ারফোন ব্যবহার করেন এবং তারা উচ্চ শব্দে মিউজিক শোনেন তাদের কানে জড়তা চলে আসে।

ম’স্তিষ্কের উপর বি’রুপ প্র’তিক্রিয়া – ইয়ারফোন থেকে একপ্র’কার তড়িত-চু’ম্বকী’য় তরঙ্গের সৃষ্টি হয়, যার ফলে অধিক সময় ধ’রে ইয়ারফোনের ব্যবহার ম’স্তিষ্কের ক্ষ’তি ক’রতে পারে বলে মনে করা হয়৷

ই’নফেকশনের সম’স্যা- ইয়ারফোন ব্য’ক্তিগত থাকাই উচিত৷ কিন্তু অনেকেই তা ব’ন্ধু-বান্ধবদের স’ঙ্গে শে’য়ার করে থাকে। এতে কানে ই’নফেকশনের স’ম্ভাবনা বেড়ে যায় অ’নেকটাই৷ তাই এই বিষয়ে স’চেতন থাকতে হবে প্র’ত্যেককে৷

উ’ল্লেখ্য কম ভলিউমে ইয়ারফোন ব্যবহার করা উচিত তাও বে’শীক্ষণ নয়৷ এবং রাস্তায় চলতে গিয়ে এসব ব্যবহার না করাই ভালো৷ আপনার সুর’ক্ষা আপনারই হাতে৷

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *