গ’র্ভাব’স্থায় ক’ত মা’স প’র্যন্ত স’হবা’স ক’রা উ’চিত? জে’নে রা’খু’ন

গ’র্ভধারণ করার আগে পর্যন্ত সকল দম্পতিই স’হবাস করে। কিন্তু অনেকের মনেই এই প্রশ্নটা ঘুরপাক খায় যে, গ’র্ভধারণ হলে কি স’হবাস

করা উচিত না উচিত না? অনেকেই মনে করেন গ’র্ভধারণ হয়ে গেলে আর স’হবাস করা উচিত নয় আবার অনেক কাপল মনে করে

গ’র্ভধারণেও স’হবাস করা যায়, ভ’য়ের কিছু নেই!এই নিয়ে অনেকের মনেই অনেক কনফিউশন থাকে।

আজ আমরা এই প্র,তিবেদনে জানবো যে গ’র্ভাবস্থায় আদৌ স’হবাস করা যায় কিনা? আর এই বি’ষয়ে ডাক্তাররা কি বলেন। আসুন দেখে নিই।

বেশিরভাগ মে’য়েদের মনেই এই প্রশ্নটা থাকে যে, গ’র্ভাবস্থায় স’হবাস করা চলে কি না, বা গ,র্ভাবস্থায় স,হবাস করলে আগত শি’শুর কোন

ক্ষ’তি হয় কি না? এই বি’ষয়ে ডা,ক্তাররা বলছেন, গ,র্ভাবস্থায় স,হবাস করা নিরাপদ তবে সেটি প্র,সব বেদনা শুরু হওয়ার আগে পর্যন্ত,

আরেই ক্ষেত্রে খেয়াল রাখতে হবে যে, শি’শুটির উপর যেন কোন ভাবে চা’প না পড়ে। অর্থাৎ পেটের উপর চা’প দিয়ে কোনভাবেই যৌ’ন

মি’লন করা যাবে না।এছাড়া অন্য যে কোন ভাবেই স,হবাস করা যেতে পারে, বেশ কিছুদিন পর্যন্ত। কিছু নিয়ম কানুন অনুসরণ করলে
কোনো প্রকার বিপত্তির স,ম্ভাবনা থাকে না।স,হবাসের সময় স্বাভাবিক নড়াচড়া গ’র্ভে থাকা শি’শুর কোন ক্ষ’তি করে না।

কারণ শি’শুটি ত,লপেট এবং জ,রায়ুর শ,ক্ত পে,শী দিয়ে সু,রক্ষিত থাকে। এছাড়া জ,রায়ুর মুখ মিউকাস প্লাগ দ্বারা সীল করা থাকে যা
শি,শুকে ইন,ফেকশনের হাত থেকে রক্ষা করে। তাই শি’শুটির কোনপ্রকার ক্ষ,তির সম্ভাবনাই থাকে না।তবে ডাক্তাররা জানাচ্ছেন যে, গ,
র্ভাবস্থায় স,হবাস কিছু ক্ষেত্রে নি,রাপদ নাও হতে পারে। তাদের মতে, যদি গ,র্ভধারণে কোন ধরনের জ,টিলতা থাকে

এবং সেটি প,রীক্ষায় ধরা পড়ে, বা আগের কোনবারের গ,র্ভধারণে কোন জ,টিলতার শি,কার হয়ে থাকেন, তাহলে স,হবাস করা একদমই
উচিত নয়। ডাক্তার ও বি,জ্ঞানীদের মতো কিছু কিছু ক্ষেত্রে স,হবাস করা উচিত নয়। সেগুলো কি কি? আসুন দেখে নিই।
১। যমজ স’ন্তানঃযদি যমজ স’ন্তানের জ’ন্ম হয়, তাহলে স,হবাস করা উচিত নয়।
২। গ’র্ভপাতঃ যদি আগে গ,র্ভপাত করান বা এবারেও গ,র্ভপাত করানোর পরিকল্পনা থাকে, তাহলে গ,র্ভাবস্থায় স,হবাস করা উচিত নয়।

৩। ইনকম্পিটেন্ট সা,রভিক্সঃ যদি সা,রভিকাল ইনকম্পিটেন্সি বা ইনক,ম্পিটেন্ট সা,রভিক্স থাকে সেক্ষেত্রে স’হবাস করা উচিত নয়। ইনকম্পিটেন্ট
সা,রভিক্স বলতে বোঝায় যখন জ,রায়ু মুখ স্বা,ভাবিক সময়ের অনেক আগেই খুলে যায়।
৪। সংক্রামক ব্যাধিঃ আপনার কিংবা আপনার স্বা,মীর কোন প্রকার সং,ক্রামক ব্যাধি থাকলে গ,র্ভাবস্থায় শা,রিরীক মি,লন থেকে বিরত

৫। প্রি-টার্ম বার্থ বা প্রি-টার্ম লেবারঃ যদি আগে প্রি-ম্যা,চিউর শি’শুর জ,ন্ম দিয়ে থাকেন বা এবারের গ,র্ভধারণের প্রি-টার্ম লে,বারের
স,ম্ভাবনা থাকে তবে স,হবাস থেকে বিরত থাকা উচিত।
এছাড়া গ,র্ভাবস্থায় শা,রিরীক মি,লনের সময় যদি দেখেন যো,নিপথ থেকে কোন তরল নি,র্গত হচ্ছে অ,স্বাভাবিক ভাবে, বা আপনি খুবই
ব্য’থা পা,চ্ছেন বা কোন ব্য,,থা অনুভব করছেন, তাহলে যত তাড়াতাড়ি পারুন ডাক্তারের পরামর্শ নিন। ডাক্তারের কথা মতো চলুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *