বিছানায় ঝ’ড় তুলতে চাইলে সপ্তাহে ৩দিন এই ৪টি খাবার খান

বিছানায় ঝ’ড় তুলতে চাইলে সপ্তাহে ৩দিন এই ৪টি খাবার খান – শরীরে পুষ্টির চাহিদা পূরনের জন্য আমাদের বিভিন্ন রকম খাবার খেতে হয়। পুষ্টি আমাদের সকলের শরীরেই দরকার। সারাদিন কাজ করার জন্য, পড়াশোনা করার জন্য, যে কোন কাজে পুষ্টি দরকার। এমনকি সে-ক্সের

জন্যও শরীরে এনার্জি দরকার হয়। এমন কিছু খাবার আছে যা শরীরের সে-ক্স বাড়াতে সক্ষম। সে-ক্স ঠিক রাখতে শরীরের এন্ড্রোক্রাইন সিস্টেম ঠিক রাখা দরকার। আর শরীরে পর্যাপ্ত পরিমানে ভিটামিন এবং মিনারেলস থাকলে সে-ক্সের ঘাটতি হয়না। এন্ড্রোক্রাইন সিস্টেম শরীরের

ইস্ট্রোজেন এবং টেস্টোস্টেরনের মাত্রা বজায় রাখে। এমনই কিছু খাদ্য আপনার যৌ-ন ইচ্ছা নিয়ন্ত্রন করে। আপনার পারফরমেন্স নিয়ন্ত্রন করে। তাহলে জেনে নিন খাদ্য গুলি কি কি…

১। দুধ ঃ দুধ একটি এমন পানীয় যাতে সমস্ত রকম পুষ্টিগুণ রয়েছে, সমস্ত প্রানীজ ফ্যাট আছে। অনেকে ফ্যাট জাতীয় খাবার খেতে পছন্দ করেনা। কিন্তু দুধে আছে এমন ফ্যাট যা শরীরে মেদ না বাড়িয়ে সমস্ত পুষ্টির ঘাটতি পূরন করে। আপনি যদি শরীরের সে-ক্স হরমোন বাড়াতে চান তাহলে রোজ আপনার খাদ্য তালিকায় রাখুন দুধ।

২। ঝিনুক ঃ আপনি যদি আপনার যৌ-ন জীবন ভালোভাবে উপভোগ করতে চান তাহলে এবার থেকে রোজ খাওয়া শুরু করুন ঝিনুক। ঝিনুকে থাকে প্রচুর পরিমানে জিঙ্ক। জিঙ্ক শুক্রাণু বাড়াতে সাহায্য করে। তার সঙ্গে যৌ-ন ইচ্ছা বৃদ্ধি করে। ঝিনুক কাঁচা খান অথবা রান্না করে খান, আপনি যৌ-ন জীবনে উপকার পাবেনই।

৩। ডিম ঃ ডিম সিদ্ধ হোক বা ভাজা যেভাবেই খান তাতে পুষ্টি পাবেন। ডিমে আছে প্রচুর পরিমানে ভিটামিন বি, ভিটামিন বি ৬। যা শরীরের হর’মোনের তারতম্য বজায় রাখে, মানসিক চাপ কমায়। আপনি নিজের স্বাস্থ্যের উন্নতি চাইলে রোজ সকালে খান একটি করে ডিম। আপনার শরীর শক্তিশালী হবে এবং যৌ-ন ক্ষমতা বৃদ্ধি পাবে।

৪। বাদাম ঃ চীনা বাদাম, কাজু বাদাম, পেস্তা ইত্যাদি খাবারে আছে প্রচুর পরিমানে মনোস্যাচুরেটেড ফ্যাট। এগুলি শরীরের জন্য প্রয়োজনীয় কোলেস্টেরল তৈরী করে। সে-ক্স হরমোন কাজ করার জন্য কোলেস্টেরল খুব দরকার। তাই প্রতিদিন চেষ্টা করুন অল্প বাদাম খাওয়া। এতে আপনার যৌ-ন স্বাস্থ্য ভালো থাকবে।

৫। পালং শাক ঃ পালং শাকে আছে ম্যাগনেসিয়াম। ম্যাগনেসিয়াম শরীরের রক্ত চলাচল সঠিক ভাবে করতে সাহায্য করে। গবেষকরা বলেন শরীরে ঠিকমত রক্ত চলাচল করলে যৌ-ন উদ্দীপনাও বাড়ে। পালং শাকের সঙ্গে আরো কিছু সবজি খেতে পারেন। এর ফলে আপনার স্বাস্থ্য উন্নতি হয়, সাথে যৌ-ন স্বাস্থ্যও উন্নত হয়।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *