লিভারের চর্বি (Fatty Liver) গলানোর ঘরোয়া চিকিৎসা, সুস্থ থাকতে চাইলে তাড়াতাড়ি করুন এটি।

বর্তমানে সমানে অনেকেই লিভারে চর্বি ( ফ্যাটি লিভার ) রোগে আক্রান্ত হচ্ছেন। অনিয়মিত খাওয়া দাওয়া, বিপাক প্রক্রিয়ার গোলমাল এবং ইনসুলিন ঠিক ভাবে কাজ না করলে লিভারের কোষ গুলোতে খুব বেশি চর্বি, বিশেষ করে ট্রাইগ্লিসারাইড জমে। এতে লিভারের ওজন হিসেবে ৫ থেকে ১০ শতাংশ চর্বির পরিমাণ বেড়ে যায়। লিভারের এই রোগটি কেড়ে নিতে পারে আপনার প্রাণও।

আপনি কি চেহারায় সুথল ? সাথে মদ্য পানের অভ্যাসও আছে? আজ থেকে সাবধান হন। এই ধরনের মানুষের এই রোগে আক্রান্ত হবার সম্ভবনা বেশি। শিশু-কিশোররাও এই রোগের প্রকোপ থেকে এখন ছাড় পাচ্ছে না। জীবনাচরণ ও খাদ্যাভ্যাসের প্রভাব রয়েছে এই সমস্যার মূলে।

স্ত্রী পুরুষ নির্বিশেষে দেখা দিচ্ছে লিভারের এই সমস্যা বহুল পরিমাণে। মদ্য পান ছাড়া আরও অনেক কারণ থাকে এই রোগের। মাত্রা ছাড়িয়ে গেলে লিভারে জ্বালা, ক্ষত, আরও সমস্যাও দেখা দিতে পারে।

অ্যালকোহলজনিত কারণে এ থেকে যে সিরোসিস হয়, তাতে ক্যান্সার হওয়ার ঝুঁকি বেশি, প্রায় ১০ শতাংশ। লিভারে মেদ জমা শুরু হলে লিভার টিসু গুলি নিজেদের মতো কাজ করতে পারেনা। তখন মানুষের মৃত্যু অবধি ঘটতে পারে।

লিভারে চর্বি জমার ঝুঁকি ও কারণগুলোকে খারাপ সময় আসার আগেই দমন করা দরকার। কেননা রোগটির কোন নির্দিষ্ট চিকিৎসা নেই। তবে ঠিক সময়ে যদি চিকিৎসা শুরু করা যায় তাহলে লিভারের রোগ থেকে সম্পূর্ণ সুস্থ হয়ে ওঠা যায়।

আসুন জেনে নেওয়া যাক দৈনন্দিন জীবনে কি কি উপায় অবলম্বন করলে আপনার লিভার সম্পূর্ণ সুস্থ থাকবে। একথা বলার অপেক্ষা রাখে না যে ঝাল তেল ছাড়া রান্না আপনার লিভারকে দীর্ঘদিন পর্যন্ত সুস্থ রাখবে। আরও কিছু ঘরোয়া জিনিস আছে যা আপনার শরীর থেকে দূরে রাখবে এই রোগ।

গ্রিন-টিঃ- রোজ সাধারন চায়ের বদলে শুরু করুন গ্রীন টি পান করার অভ্যাস। এতে আপনার লিভার ভালো থাকবে। সাথে আরও সমস্যার সমাধানও ঘটবে।

আমলার রসঃ- আমলা খুবই উপাদেয় একটি ফল। ২৫ দিন এই রস এক চামচ করে সকালে খেলে লিভারের রোগ দূর হবে।

আদা জলঃ- এক চা চামচ আদা গরম জলে মিশিয়ে দিনে দুবার পান করুন। এই পানীয় টানা ১৫ দিন খেলেই দেখবেন সুস্থ বোধ করছেন। কারণ এটি লিভারে চর্বি জমার প্রক্রিয়াটি প্রায় বন্ধ করে দেয়। ফলে লিভার আস্তে আস্তে ঠিক হতে শুরু করে।

অ্যাপেল সিডার ভিনিগারঃ- এক কাপ উষ্ণ গরম জলে কেয়েক ফোঁটা অ্যাপেল সিডার ভিনিগার মিশিয়ে প্রতিদিন সকালে পান করুন। কয়েক মাস এটা পান করলেই দেখবেন লিভারে জমে থাকা চর্বি সব গায়েব হয়ে গেছে।

লেবুর রস- প্রতিদিন লেবুর রস পান করুন। লেবুর রসের ভিটামিন-সি লিভারকে দূষণমুক্ত করতে সাহায্য করে। ভালো অভ্যাসগুলি শুরু করুন আজ থেকেই।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *