ইলিশ মাছ রান্নায় যেসব ভুল করবেন না

যে মাছটির নাম শুনলেই জিভে জল চলে আসে তার নাম ইলিশ। সুস্বাদু এই ইলিশ খেতে ভালোবাসে না এমন মানুষ খুব কমই আছে। তাইতো নানাভাবে নানা স্বাদে ইলিশ রান্না করে থাকেন সবাই।
তবে ইলিশ রান্নার ক্ষেত্রেও কিছু কিছু ভুল এর আসল স্বাদ নষ্ট করে দিতে পারে। কারণ ইলিশ মাছ রান্নারও রয়েছে বিশেষ কিছু টিপস। চলুন জেনে নেয়া যাক সেগুলো-

নিশ্চয়ই জানেন, ইলিশ মাছের ফ্লেভারটাই আসল। তাই ইলিশ রান্নার সময় এমন কিছু উপকরণ ব্যবহার করবেন না, যা ইলিশের ফ্লেভারটাকেই নষ্ট করে দেয়। তবে সর্ষের কথা আলাদা। এর ঝাঁঝের সঙ্গে ইলিশের একটা আবহমান কালের বোঝাপড়া। একটু স্ট্রং ফ্লেভারের হলেও তা ইলিশের আসল গন্ধটা অটুট রেখে তার স্বাদ বাড়িয়ে তোলে। তাই স্ট্রং ফ্লেভারের কোনো উপকরণ দিয়ে ইলিশ নিয়ে এক্সপেরিমেন্ট করার আগে নিশ্চিত হয়ে নিন, তা ইলিশের স্বাদ ও গন্ধকে কতটা সমৃদ্ধ করবে।

ইলিশ মাছ রান্নার তেমন কোনো ঝক্কি নেই। ইলিশ পরিষ্কার করে, আঁশ ছাড়িয়ে কেটে লবণ হলুদ মাখিয়ে আধাঘণ্টা রেখে দিন। তারপর সরষে ইলিশ, দই ইলিশ বা ভাপা ইলিশ যা ইচ্ছে রাঁধুন।

যদি ইলিশ মাছ ভাজা খেতে চান তবেই একমাত্র কড়া করে ভাজুন। কিন্তু অন্যান্য পদ রাঁধার সময় হালকা ভাজাই ভালো লাগবে। কড়া করে ভাজলে ইলিশের মধ্যে অন্যান্য মশলা ঢুকবে না। ফলে স্বাদ কিছুতেই ভালো হবে না। বরং ইলিশ মাছ একটু লালচে বাদামী রঙ ধরতে শুরু করলেই নামিয়ে নিন।

বাড়িতে সরষে ইলিশ বা দই ইলিশ ছাড়াও মাঝে মাঝেই হালকা ঝোল রাঁধেন? তাহলে এবার হালকা ইলিশের ঝোল রাঁধার সময় গন্ধরাজ লেবুর পাতা ব্যবহার করুন। ঝোল ফুটতে শুরু করলে, নামানোর কিছুক্ষণ আগে গন্ধরাজ লেবুর পাতা দিন। তবে বেশিক্ষণ ফোটাবেন না। তাহলে তেতো হয়ে যাবে। আবার একটু ঝাল মশলায় ইলিশ রাঁধতে চাইলে, মাংস রান্নার সময় যেভাবে গ্রেভি বানান, সেরকম ভাবে রান্না করুন।

ইলিশ এমন একটা মাছ যা সহজেই নানা ফল দিয়েও রান্না করা যেতে পারে। আনারস দিয়ে ইলিশের পদ রান্নার কথা শুনেছেন নিশ্চয়ই। আনারস ছাড়াও আঙুর আপেলের মতো ফল দিয়ে ইলিশের নানা এক্সপেরিমেন্টাল পদ রান্না করা যায়।

মাইক্রো ওভেনেও ইলিশ রাঁধতে পারেন। তবে তার ঘণ্টা দুই আগে লবণ-হলুদ মাখিয়ে রাখুন। মাইক্রো ওভেনে সরষে ইলিশ রাঁধতে হলে ইলিশের গায়ে একেবারে সরষে বাটা মাখিয়ে তারপর ওভেনে দিন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *