সতর্ক করল নাসা, পৃথিবীর দিকে সর্বোচ্চ গতিতে ধেয়ে আসছে গ্রহাণু!

ফের গ্রহাণুর আবির্ভাব পৃথিবীর দিকে, মনে রাখতে হবে সালটা ২০২০, আর এই বছরেই যেনো সব কিছু দেখার আমর’া সবাই ঠিকা নিয়ে বসে আছি। গত কয়েকদিন আগেই একটি গ্রহাণু ছুটে আসছিল পৃথিবীর দিকে। সেটাকে কা’টানো গেছে কোনমতে। কিন্তু এবারেরটা একেবারে বেজায় বেয়ারা। তাই হয়ত নাসাও এর সম্পর্কে ঠিক ঠাক বলতে পারছে না।

11 ES4 এই গ্রহাণুর নাম। অন্য সব গ্রহাণুর থেকে অনেকটাই ছোট, তবুও চিন্তা বাড়াচ্ছে বিজ্ঞানীদের। আগামীকাল ১ লাসেপ্টেম্বর ম’ঙ্গলবার এই গ্রহাণু পৃথিবীর একেবারে কাছে আসতে চলেছে। আর তার ফলেই যে একটা অজানা প্রভাব পরতে চলেছে পৃথিবী সহ তার উপগ্রহ চাঁদের উপরেও সেটা কিছুটা হলেও আন্দাজ করা যাচ্ছে।

আসলে ইতিহাসের পাতা ঘেটে দেখলে এমন কোনও তথ্যই পাওয়া যাচ্ছে না যে, এতো কাছে কোনো দিন গ্রহাণুর অবস্থান ‘হতে পারে। কারণ সব থেকে কাছের গ্রহাণুর দূরত্ব ছিল পৃথিবী থেকে ২০ লক্ষ কিমির মতো, আর সেই ঘটনা ঘটেছিলো ১৯৮৭ সালে। কিন্তু এবারেরটা সব থেকে কাছে। কারণ আনুমানিক দুরত্ব জানা গেছে ১২ লক্ষ কিমির মতো। যেখানে চাঁদের দূরত্ব ৩৮ লক্ষ কিমির মতো। তাহলে বোঝাই যাচ্ছে পৃথিবীর উপগ্রহের থেকেও আরও বেশী কাছে আসবে এই গ্রহাণু।

আগামী ২০৩২ সালেও এমন এক গ্রহাণু এভাবেই কাছে চলে আসবে বলে জানিয়েছে নাসার বিজ্ঞানীরা। কিন্তু বর্তমানে দেখতে গেলে বিজ্ঞানীদের রাতের ঘু’ম উড়াচ্ছে এই গ্রহাণু। তবে বিজ্ঞানীরা যেটা আশার আলো দিয়েছে সেটা হল, কোনোভাবেই পৃথিবীর সাথে ঘর্ষন হবে না গ্রহাণুর। তাহলে বলাই যেতে পারে, একেবারে কানের কাছ দিয়েই যাব’ে এই গ্রহানূ।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *